শনিবার ২৫ মে ২০২৪, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অবস্থান জানতে ইসির চিঠি

প্রকাশিত : ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ২৪ জানুয়ারি ২০২৪ বুধবার ১৭ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী স্বতন্ত্র সংসদ-সদস্যরা কোনো দল বা জোটে যোগ দিয়েছেন কি না, তা জানতে চেয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচন আয়োজনের প্রস্তুতি নিতে এ তথ্য চেয়ে স্বতন্ত্র সংসদ-সদস্যদের চিঠি দেওয়া হয়েছে। চিঠিতে দল বা জোটের সমর্থনের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় দিয়েছে ইসি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২২৩, জাতীয় পার্টি ১১, স্বতন্ত্র ৬২ এবং জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টি ও কল্যাণ পার্টি একটি করে আসনে বিজয়ী হয়। জাতীয় সংসদ (সংরক্ষিত মহিলা আসন) নির্বাচন আইন অনুযায়ী, সাধারণ নির্বাচনে জয়ী দল বা জোটগুলোর মধ্যে ৫০টি সংরক্ষিত আসন আনুপাতিক হারে বণ্টন করা হয়। বণ্টনের সুবিধার্থে সংসদ-সদস্যদের অবস্থান জানতে চেয়েছে ইসি।

স্বতন্ত্র সংসদ-সদস্যদের কাছে পাঠানো নির্বাচন কমিশন সচিব মো. জাহাংগীর আলম স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ‘জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের নিমিত্ত সংসদে আনুপাতিক প্রতিনিধিত্ব পদ্ধতির ভিত্তিতে রাজনৈতিক দল ও জোটের মধ্যে আসন বণ্টনের জন্য সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী রাজনৈতিক দল বা জোটওয়ারি সদস্যদের পৃথক পৃথক তালিকা করার বিধান রয়েছে।

জাতীয় সংসদ (সংরক্ষিত মহিলা আসন) নির্বাচন আইন, ২০০৪-এর ৩(১) ধারা অনুসারে, সংসদের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশিত হওয়ার তারিখের পরবর্তী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সাধারণ আসনের নির্বাচিত সংসদ-সদস্যদের রাজনৈতিক দল বা জোটওয়ারি সদস্যদের পৃথক তালিকা প্রস্তুত করতে হবে। ওই আইনের ৩ ধারার (৩), (৪), (৫) ও (৬) উপধারা অনুসারে, নির্দলীয় সদস্য কোনো রাজনৈতিক দল বা জোটে যোগদান অথবা রাজনৈতিক দল বা নির্দলীয় সদস্যদের নিয়ে জোট গঠন করা হলে তদানুযায়ী পৃথক তালিকা প্রস্তুতের বিধান রয়েছে।

অপরদিকে আইনের (৩৭) ধারা অনুসারে, উক্তরূপ জোট গঠন অথবা রাজনৈতিক দল বা জোটে যোগদানের বিষয়টি সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশিত হওয়ার পরবর্তী ২১ কার্যদিবসের মধ্যে নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করতে হবে। এ অবস্থায় ‘রাজনৈতিক দল বা জোটওয়ারি সদস্যদের পৃথক তালিকা প্রস্তুতির সুবিধার্থে কোনো নির্দলীয় সংসদ-সদস্য আপনার দলে বা জোটে যোগদান করেছেন কি না; অথবা সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচনের উদ্দেশ্যে অন্য কোনো দলের সঙ্গে আপনার দলের জোট গঠিত হয়েছে কি না; তা ৩১ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করার জন্য আপনাকে বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।’

সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনের বিষয়ে মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, আইন অনুযায়ী গেজেট প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হয়। আমরা হয়তো তালিকা আগামী সপ্তাহে বা এ সপ্তাহের শেষেও পেয়ে যেতে পারি। যদি জোট হয়, ছোট ছোট রাজনৈতিক দল আছে, তারা জোট করতে পারে। রাজনৈতিক দলের মধ্যেও জোট হতে পারে। স্বতন্ত্ররাও জোট হতে পারে, আবার রাজনৈতিক দল ও স্বতন্ত্র মিলেও জোট হতে পারে। স্বতন্ত্রদের জোট না হলে কী হবে-জানতে চাইলে তিনি বলেন, জোট না হলে সেগুলো শূন্য থাকবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT