শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ কিশোরীদের আত্মরক্ষার্থে মাসব্যাপী কারাতে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ◈ কাভার্ডভ্যান-ট্রাক মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার ◈ ‘দেশে করোনায় মৃতদের ৬০ শতাংশের বেশি ডায়াবেটিস-উচ্চরক্তচাপের রোগী’ ◈ ঘাটতি পূরণে প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য ১১ দফা নির্দেশনা ◈ ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জের প্রতারণার পর এবার আলোচনায় কিউকম ◈ বাংলাদেশিদের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার জাপানের ◈ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের নামে প্রতিবন্ধী কার্ড ◈ ১৫ দফা দাবিতে তিনদিনের ধর্মঘটের ডাক ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির ◈ করোনা: বরিশালে রেকর্ড সর্বনিম্ন শনাক্ত ◈ এখনও করোনা সংক্রমণের কোনও খবর আসেনি: শিক্ষামন্ত্রী

সিরাজগঞ্জে সবজির বাজারে আগুন

প্রকাশিত : ০৩:৪৯ অপরাহ্ণ, ১৫ অক্টোবর ২০২০ বৃহস্পতিবার ৯১ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

সিরাজগঞ্জে সবজির বাজার যেন আগুন লেগেছে। প্রতিটি সবজির দাম হু হু করে বাড়ছে। পিয়াজ-মরিচের সাথে পাল্লা দিয়ে এবার আলুতে যেন আগুন লেগেছে। সরকার খুচরা বাজারে আলুর দাম ৩০ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও এখনো খুচরা বাজারে প্রতি কেজি আলু ৪৫ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এতে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্ত ও দরিদ্রের মধ্যে চরম অসন্তোষ শুরু হয়েছে। আয়ের সাথে ব্যয়ের মিল না থাকায় সাধারণ মানুষ চরম বিপাকে পড়েছে। তাদের মধ্যে চরম ও ক্ষোভ হতাশা বিরাজ করছে। সংসার কিভাবে চালাবে এ নিয়ে দুশ্চিতনায় পড়েছে।

সিরাজগঞ্জ বাজার স্টেশন খুচরা ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম জানান, আমরা পাইকারী ৪৪-৪৫ টাকায় আলু কিনে আনছি আর বিক্রি করছি ৪৫-৫০ টাকায়। সরকার যে দাম বেধে দিয়েছে সেই দামে বিক্রি করলে আমাদের ক্ষতি হবে। আমরা লস দিয়ে তো আর বিক্রি করতে পারব না।
শিশু পার্কের আড়তদার সবুজ হোসেন জানান, বগুড়া ও রংপুর হিমাগার থেকে আলু কিনে সিরাজগঞ্জে আনতে ৪১ টাকা কেজি পড়ে যায়। দুই টাকা লাভে বিক্রি করতে হলে ৪৩ টাকা বিক্রি করতে হয়। আমরা তো লস দিতে পারবো না। তিনি জানান, সরকার যদি হিমাগারের বড় বড় ব্যবসায়ীদের দাম কমানোর নির্দেশ দেয় হবে অটোমেটিক বাজারে দাম কমে যাবে ।

এদিকে, বর্তমানে বাজারে আলু ছাড়াও সমস্ত জিনিপত্রের দাম বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। পিয়াজ ৯০ টাকা, কপি ১০০ টাকা, মরিচ ২৬০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, শসা ৭৫ টাকা, ঢেড়শ ৬০ টাকা, পটল ৪৫ টাকা, করলা ৯০ টাকা, লাউ ৪০-৪৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এতে সাধারন মানুষের মধ্যে নাভিশ্বাস শুরু হয়েছে।
বাজার ষ্টেশন এলাকার চায়ের দোকান জুলমাত হোসেন জানান, দিনে কাজ করে ৪০০ টাকা রোজগার করি। সাতজনের সংসার। সবজি কিনতেই টাকা শেষ হয়ে যায়। আর চাল কিনব কি করে? চালের দামও বেশি। ভয়াবহ কস্টের মধ্যে দিনযাপন করতে হচ্ছে। সরকার যদি জিনিস পত্রের দাম না কমায় তা হলে আমাদের অর্ধাহারে দিন কাটাতে হবে।

আরেক ক্রেতা আব্দুর রহমান জানান, যারা ছোটখাটো চাকরি, রিক্সা চালায়, দিনমজুরী করে তাদের কষ্টের শেষ নেই। যে আয় করে ব্যয় তার দ্বিগুণ হচ্ছে। ধারদেনা করে জীবন সংসার চালাতে হচ্ছে। এ অবস্থায় চললে সামনে আরো ভয়াবহ দুর্বিসহ ওঠবে সাধারণ মানুষের জীবনযাপন।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহমেদ জানান, সবজির বাজার বিশেষ করে আলুর দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের বেশি দাম না নেয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT