রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১লা বৈশাখ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শাবানার তুলনা তিনি নিজেই: সোহেল রানা

প্রকাশিত : ০৫:৩২ অপরাহ্ণ, ১৫ জুন ২০২৩ বৃহস্পতিবার ৭৬ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

রেকর্ডসংখ্যক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী এবং তিন শতাধিক সিনেমার নায়িকা শাবানার জন্মদিন আজ। অনেক সুপারহিট নায়কের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি। তাদের মধ্যে অন্যতম সোহেল রানা।

বৃহস্পতিবার শাবানার জন্মদিন উপলক্ষ্যে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন নায়ক সোহেল রানা।

তিনি বলেন, শাবানাকে চিনি বহু বছর ধরে। তার সঙ্গে নায়ক হিসেবে যেমন অভিনয় করেছি, তেমনি আমার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকেও অভিনয় করেছেন তিনি। আমার প্রথম প্রযোজনা “ওরা ১১ জন” সিনেমায় শাবানা ছিলেন। আমার অভিনয় জীবনে কতশত স্মৃতি তার সঙ্গে। শাবানাকে কখনো অহংকার করতে দেখিনি। শুটিং সেটেও অহংকার করতে দেখিনি।

সোহেল রানা বলেন, শাবানা আসলেই শাবানা। তার তুলনা তিনি নিজেই। তার নামটিই যথেষ্ট। একজন মানুষের আর কী লাগে একজীবনে? তার অর্জন তো চলচ্চিত্রের ইতিহাসে লেখা থাকবে সারাজনম। কেউ অস্বীকার করতে পারবে না তার অবদান।

এ সময় অভিনেতা বলেন, শিল্পী হিসেবে শাবানা কত বড়মাপের তা বলে শেষ করা সম্ভব নয়। এটা সময় বিচার করবে। আমি শুধু বলব— অনেক বড়মাপের শিল্পী তিনি। সামাজিক হোক, রোমান্টিক হোক, পোশাকি হোক—সব ঘরানার সিনেমায় শাবানা অভিনয় করে দেখিয়ে দিয়েছেন তিনি কত বড়মাপের শিল্পী।

সোহেল রানা আরও বলেন, শাবানার গুণের শেষ নেই। গুণবতী শিল্পী ও গুণবতী মানুষ শাবানা। সরল মানুষ তো অবশ্যই। তার এই গুণটি আমাকে মুগ্ধ করেছে সবসময়। তার মুখটাও সরলতায় ভরা। আমরা বাঙালি। বাঙালির জীবনের সঙ্গে মিল রেখে যেসব সামাজিক সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন, তা দেখার পর তাকে যতটা আপন মনে হয়েছে, অন্য কাউকে কমই মনে হয়েছে। তিনি যেন বাঙালি নারীর প্রতিচ্ছবি। যে কারণে তার ভক্তের শেষ নেই। শহর গ্রাম সবখানে তার ভক্ত।

তিনি বলেন, তার সিনেমা দেখে বাঙালি কাঁদতে কাঁদতে হল থেকে বের হতেন। হাসতেন, কাঁদতেন, ভালোবাসতেন। শাবানার এমনই জাদুকরী অভিনয় ক্ষমতা ছিল। তার জন্য আমার প্রার্থনা ও দোয়া। শাবানা আরও বহু বছর বেঁচে থাকুন, জন্মদিনে এমনটিই চাওয়া।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



এই বিভাগের জনপ্রিয়

২০২১ সালের মিসওয়ার্ল্ড তথা বিশ্বসুন্দরীর খেতাব পেয়েছেন পোল্যান্ডের মডেল ক্যারোলিনা বিলাস্কা।   বুধবার ক্যারিবীয় দ্বীপরাষ্ট্র পুয়ের্তো রিকোর রাজধানী সান হুয়ানে জমকালো এক অনুষ্ঠানে সব প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে সেরার মুকুট পরেন ক্যারোলিনা।    ৭০তম বিশ্বসুন্দরী হলেন এই পোলিশ তরুণী। দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছেন যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের শ্রী শাইনি আসেন ও আইভরি কোস্টের অলিভিয়া ইয়াস।  মিসওয়ার্ল্ডের অফিসিয়াল টুইটার পেজে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।      প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নেওয়ার সময় দেওয়া তথ্য বলছে, ম্যানেজমেন্টে মাস্টার্স পাশ করছেন ক্যারোলিনা। পিএইচডি করতে চান তিনি। পাশাপাশি চালিয়ে নিতে চান মডেলিংটাও।  পিএইচডি শেষে মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবেও কাজ করার স্বপ্ন রয়েছে তার। মানবিক কাজে আত্মনিয়োগে আরো বেশি জড়িয়ে পড়তে চান।  ক্যারোলিনা জানান, দুস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়াতে ভালোবাসেন তিনি। এমন কিছু প্রকল্পে ইতোমধ্যে যুক্তও হয়েছেন। তার বিউটি উইথ আ পারপাস প্রোজের মাধ্যমে ছিন্নমূলদের সাহায্য করা হচেছ।  বাস্তুহারাদের নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হয়। প্রতি রোববার পোল্যান্ডের লডজ শহরের ৩০০ মানুষকে খাবার, পানি, কাপড়, মাস্ক, জামাকাপড়, আইনি পরামর্শ, চিকিৎসাজনিত সাহায্য পৌঁছে দেয় প্রকল্পটি।    নিজ দেশের সরকারের সাথে সমন্বয় করে জনগণদের করোনা টিকা দিয়ে যাচ্ছে ক্যারোলিনার এই ফাউন্ডেশন। পোল্যান্ডের লডজ শহরে তাঁরাই প্রথম ‘সোশ্যাল বাথরুম’ তৈরি করে।  সামাজিক কর্ম ছাড়াও অবসর পেলে ক্যারোলিনা সাঁতার, স্কুবা ডাইভিং, টেনিস আর ব্যাডমিন্টন খেলেন।   প্রসঙ্গত, ‘মিসওয়ার্ল্ড ২০২১’ গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর হওয়া কথা ছিল। কিন্তু স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার কারণে এটি স্থগিত করা হয় সেই সময়।

২০২১ সালের মিসওয়ার্ল্ড তথা বিশ্বসুন্দরীর খেতাব পেয়েছেন পোল্যান্ডের মডেল ক্যারোলিনা বিলাস্কা। বুধবার ক্যারিবীয় দ্বীপরাষ্ট্র পুয়ের্তো রিকোর রাজধানী সান হুয়ানে জমকালো এক অনুষ্ঠানে সব প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে সেরার মুকুট পরেন ক্যারোলিনা। ৭০তম বিশ্বসুন্দরী হলেন এই পোলিশ তরুণী। দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছেন যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের শ্রী শাইনি আসেন ও আইভরি কোস্টের অলিভিয়া ইয়াস। মিসওয়ার্ল্ডের অফিসিয়াল টুইটার পেজে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নেওয়ার সময় দেওয়া তথ্য বলছে, ম্যানেজমেন্টে মাস্টার্স পাশ করছেন ক্যারোলিনা। পিএইচডি করতে চান তিনি। পাশাপাশি চালিয়ে নিতে চান মডেলিংটাও। পিএইচডি শেষে মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবেও কাজ করার স্বপ্ন রয়েছে তার। মানবিক কাজে আত্মনিয়োগে আরো বেশি জড়িয়ে পড়তে চান। ক্যারোলিনা জানান, দুস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়াতে ভালোবাসেন তিনি। এমন কিছু প্রকল্পে ইতোমধ্যে যুক্তও হয়েছেন। তার বিউটি উইথ আ পারপাস প্রোজের মাধ্যমে ছিন্নমূলদের সাহায্য করা হচেছ। বাস্তুহারাদের নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হয়। প্রতি রোববার পোল্যান্ডের লডজ শহরের ৩০০ মানুষকে খাবার, পানি, কাপড়, মাস্ক, জামাকাপড়, আইনি পরামর্শ, চিকিৎসাজনিত সাহায্য পৌঁছে দেয় প্রকল্পটি। নিজ দেশের সরকারের সাথে সমন্বয় করে জনগণদের করোনা টিকা দিয়ে যাচ্ছে ক্যারোলিনার এই ফাউন্ডেশন। পোল্যান্ডের লডজ শহরে তাঁরাই প্রথম ‘সোশ্যাল বাথরুম’ তৈরি করে। সামাজিক কর্ম ছাড়াও অবসর পেলে ক্যারোলিনা সাঁতার, স্কুবা ডাইভিং, টেনিস আর ব্যাডমিন্টন খেলেন। প্রসঙ্গত, ‘মিসওয়ার্ল্ড ২০২১’ গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর হওয়া কথা ছিল। কিন্তু স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার কারণে এটি স্থগিত করা হয় সেই সময়।

© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT