শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বড় ও সেবা শিল্পে ১৫ হাজার কোটি টাকার পুনরর্থায়ন তহবিল

প্রকাশিত : ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ, ২৪ এপ্রিল ২০২০ শুক্রবার ১০৬ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

বড় ও সেবা শিল্পের জন্য প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৩০ হাজার কোটি টাকার ঋণ তহবিলের ৫০ শতাংশ অর্থের জোগান দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিজস্ব উৎস থেকে ১৫ হাজার কোটি টাকার একটি পুনরর্থায়ন তহবিল গঠন করা হয়েছে। এ তহবিলের নাম দেওয়া হয়েছে ‘বৃহৎ শিল্প ও সার্ভিস সেক্টরে ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল ঋণ সুবিধা প্রদানের পুনরর্থায়ন স্কিম’।

৪ শতাংশ সুদে এই তহবিল পাবে ব্যাংকগুলো, যা ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে আরোপিত হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এসংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবেলায় বড় ও সেবা শিল্পের জন্য চলতি মূলধন ঋণ জোগানে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৩০ হাজার কোটি টাকার তহবিলের ব্যবহার নিয়ে গত ১২ এপ্রিল সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই সার্কুলারে বলা হয়েছিল, এ তহবিলের পুরোটাই বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিজস্ব উৎস থেকে বিতরণ করতে হবে। তবে অনেক ব্যাংক তারল্য সংকটে থাকায় এখন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিজস্ব উৎস থেকে ১৫ হাজার কোটি টাকার তহবিল জোগান দিতে এই পুনরর্থায়ন স্কিম গঠন করা হলো। এর ফলে বাকি ১৫ হাজার কোটি টাকা ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর নিজস্ব উৎস থেকেই বিতরণ করতে হবে।

বৃহস্পতিবারের সার্কুলারে বলা হয়েছে, আর্থিক সহায়তা প্যাকেজে তারল্য সরবরাহ নিশ্চিতকল্পে বড় ও সেবা শিল্পে চলতি মূলধন জোগানে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৩০ হাজার টাকার মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ১৫ হাজার কোটি টাকার পুনরর্থায়ন স্কিম গঠন করা হয়েছে। এ তহবিলের মেয়াদ হবে তিন বছর। প্রতিটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এসংক্রান্ত আগের সার্কুলার অনুযায়ী বরাদ্দকৃত তহবিলের বিপরীতে ৫০ শতাংশ অর্থ এই স্কিমের আওতায় পুনরর্থায়ন সুবিধা নিতে পারবেন। এর আওতায় পুনরর্থায়ন গ্রহণে ইচ্ছুক ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে একটি অংশগ্রহণমূলক চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে। এর আওতায় পুনরর্থায়নকৃত অর্থ উদ্দেশ্যবহির্ভূত অন্য কোনো খাতে ব্যবহার করা হলে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সে পরিমাণ অর্থের ওপর নির্ধারিত সুদহারের অতিরিক্ত ২ শতাংশ সুদ সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে এককালীন আদায় করতে পারবে।

গত ১২ এপ্রিলের সার্কুলার অনুযায়ী, যেসব শিল্প ও সেবা প্রতিষ্ঠান করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শুধু সেসব প্রতিষ্ঠানই এর আওতায় সুবিধা পাবে। কোনো খেলাপি গ্রহীতা এ তহবিলের ঋণ পাবেন না। এ ছাড়া যেসব প্রতিষ্ঠানের ঋণ মন্দ ঋণে পরিণত হওয়ায় এরই মধ্যে তিনবারের বেশি পুনঃ তফসিল সুবিধা নিয়েছেন, তাঁরাও এই প্যাকেজের সুবিধা পাবেন না। এ তহবিল থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে উদ্যোক্তারা ৯ শতাংশ সুদে ঋণ নিতে পারবেন। তবে তাঁদের ৪.৫ শতাংশ সুদ পরিশোধ করতে হবে, বাকি ৪.৫ শতাংশ সুদ সরকার ভর্তুকি হিসেবে দেবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT