সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্যস্ত সময় পার করছেন শেরপুরের কামারশিল্পীরা

প্রকাশিত : ০৫:১০ অপরাহ্ণ, ৪ জুলাই ২০২২ সোমবার ২৬ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

ঈদুল আজহা সামনে রেখে বগুড়ার শেরপুরের খানপুর, খামারকান্দি, মির্জাপুর, ভবানীপুর, বিশালপুর, কুসুম্বী, গাড়িদহসহ প্রায় সব হাটবাজারেই ব্যস্ত সময় পার করছেন কামারশিল্পীরা। শেরপুর উপজেলার বহু পুরনো কয়েরখালী হাটবাজারের কামারপল্লী এখন লোহা ও হাতুড়ির টুং-টাং শব্দে বিভোর।

হাতুড়ির আঘাতে তৈরি হচ্ছে দা, বঁটি, চাকু, কুড়াল, ছুরি, চাপাতিসহ ধারালো সব যন্ত্রপাতি। অনেকে আবার বাড়িতে থাকা পুরাতন দা-বঁটি, ছুরি সান দেওয়ার জন্য নিয়ে আসছেন তাদের কাছে। সারা বছর কাজ সীমিত থাকলেও কুরবানির ঈদের এ সময়টাতে বেড়ে যায় তাদের কর্মব্যস্ততা।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, খানপুর ইউনিয়নের কয়েরখালী হাট মির্জাপুর হাট, ছোনকা হাটের কামারপল্লীসহ বিভিন্ন স্থানে এসব সরঞ্জাম তৈরি করা হচ্ছে। দোকানগুলোতে প্রতি পিস চাকু ১০০-২৫০ টাকা, দা ৪০০-৬০০, ৫০০ টাকা কেজি দরে চাপাতি, জবাই ছুরি ৮০০-১২০০ এবং বঁটি ৩০০-৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

কয়েরখালী হাটের কর্মকার ফেরদৌস জামান জানান, আমার বাবা দীর্ঘদিন এ কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। আমরাও অনেক ধরে বাবার এ পেশাকে বেছে নিয়েছি। এখন নতুন ছুরি ও চাপাতি তৈরি করছি। ঈদের একদিন আগে সবার বাড়ির পুরাতন দা-বঁটি মেরামত ও ধার কাটাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ব।

শেরপুর বারোদুয়াড়ি হাটের কর্মকারেরা জানান, সারা বছর টুকটাক বেচাকেনা হলেও প্রতি বছর কুরবানির ঈদের আগে ভালো বেচাকেনা হয়। কুরবানির ঈদ এখনো প্রায় ৪-৫ দিন বাকি। তবে ঈদের দুই-তিন দিন আগে থেকে পুরোদমে বেচাকেনা শুরু হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT