বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি ২০২২, ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রীর ৫০ বছর দৃঢ় হোক দুই দেশের সম্পর্ক

প্রকাশিত : ০৭:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ৮ ডিসেম্বর ২০২১ বুধবার ২৬ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

গত ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশকে ভারতের স্বীকৃতি প্রদানের ৫০ বছর পূর্ণ হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এ দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্র তাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে। এ উপলক্ষ্যে সোমবার নয়াদিল্লিতে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব ওয়ার্ল্ড অ্যাফেয়ার্স (আইসিডব্লিউএ) একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহাম্মদ ইমরান এবং আইসিডব্লিউএ’র মহাপরিচালক বিজয় ঠাকুর সিং বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এ বর্ষপূর্তি আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ভিত্তি এবং সামনের পথচলা সম্পর্কে চিন্তা করার সুযোগ এনে দিয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী গতিশীল অংশীদারিত্বকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করার জন্য নিজেদের পুনরায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ করার এটি একটি উপলক্ষ্য। এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক টুইট বার্তায় বলেছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও বিস্তৃত ও গভীর করতে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কাজ চালিয়ে যেতে চান। ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনও এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনটি সাড়ম্বরে পালন করেছে।

বস্তুত ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ‘জন্মসূত্রেই’ মৈত্রীর বন্ধনে আবদ্ধ। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী যখন উন্নত অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে নিরস্ত্র বাঙালিদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, ভারত তখন বাংলাদেশ থেকে যাওয়া এক কোটি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিল; তাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করেছিল। ভারত সরকারের পাশাপাশি সেদেশের জনগণও তখন নানাভাবে বাংলাদেশকে সহায়তা করেছে। ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী বাংলাদেশের পক্ষে কূটনৈতিক প্রচারণা চালাতে এক দেশ থেকে আরেক দেশে ছুটে গেছেন। বাংলাদেশের মুজিবনগর সরকারের জন্য জায়গা দেওয়ার পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের সুযোগ করে দিয়েছিল ভারত। শুধু তাই নয়, ১৯৭১ সালের ডিসেম্বরে পাকিস্তান বাহিনীর বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের বিজয়কে ত্বরান্বিত করতে সহায়তা করেছিল ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে এ পরীক্ষিত বন্ধুত্ব সবসময় অটুট থাকবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসাবে বাংলাদেশকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিয়েছিল ভারত। ভারতের মতো বৃহৎ ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে প্রভাবশালী রাষ্ট্রের এ স্বীকৃতির তাৎপর্য ছিল ব্যাপক। এই স্বীকৃতিকে তাই কূটনৈতিক ‘মাস্টারস্ট্রোক’ হিসাবে গণ্য করা হয়। ভারতের স্বীকৃতি দেওয়ার দিন হিসাবে ৬ ডিসেম্বরকে ‘মৈত্রী দিবস’ হিসাবে পালন করা হচ্ছে দুই দেশে। আমরা চাই, এ মৈত্রী দুই দেশের সম্পর্ক ও সহযোগিতাকে আগামীতে আরও সুদৃঢ় করুক।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT