শনিবার ২৫ মে ২০২৪, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তলোয়ার নিয়ে এলে রাইফেল দিয়ে প্রতিরোধ করবেন: সিইসি

প্রকাশিত : ০৫:৫৭ অপরাহ্ণ, ১৭ জুলাই ২০২২ রবিবার ৭০ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

কেউ তলোয়ার নিয়ে এলে প্রতিপক্ষকে রাইফেল দিয়ে প্রতিরোধ করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

রবিবার (১৭ মে) নির্বাচন ভবনে আয়োজিত দ্বাদশ সংসদীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আয়োজিত সংলাপে অংশ নিয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

সিইসি বলেন, আমরা সহিংসতা বন্ধ করতে পারবো না। আপনাদেরও দায়িত্ব নিতে হবে। কারণ, খেলোয়াড় কিন্তু আপনারা। মাঠে খেলবেনও আপনারাই, আমরা রেফারি। আমাদের অনেক ক্ষমতা আছে, সেটা কিন্তু কম না, ক্ষমতা প্রয়োগ করবো। আমি আপনাদের স্পষ্ট করে জানাতে চাচ্ছি- গত ১৪ ও ১৮ সালের নির্বাচনের দায় আমাদের ওপর চাপাবেন না। নির্বাচনটাকে অংশগ্রহণমূলক এবং নিরপেক্ষ করতে আমরা সর্বাত্মকভাবে চেষ্টা করব।

তিনি বলেন, ‘আপনি যদি (রাজনৈতিক দল) দৌড় দেন, তাহলে কী করবো? আমরা সাহায্য করবো।’ পুলিশের ও সরকারের ওপর ইসির কমান্ড থাকবে।’

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘নির্বাচনের সময় যেটি থাকবে, সেটি কিন্তু সরকার। আমি বারবার বলেছি, রাজনৈতিক দল আর সরকার এক নয়। প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগেরও সভানেত্রী। কিন্তু যখন তিনি প্রধানমন্ত্রী, তখন তিনি সরকার প্রধান, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী নয়। এটি বুঝতে হবে। আমরা সরকারের সাহায্য চাইব। সরকার যদি সহায়তা না করে, তাহলে নির্বাচনের পরিণতি খুবই ভয়াবহ হতে পারে।

প্রধান নির্বাচন নির্বাচন কমিশনার বলেন, নির্বাচন কমিশন সবার অংশগ্রহণ, সহযোগিতা ও সমর্থন নিয়ে নির্বাচন করতে চায়। অন্যথায় অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমাদের প্রয়াস যতই আন্তরিক হোক, ব্যর্থতায় পর্যবসিত হতে পারে। সেটা কাম্য নয়।

সকল দলকে আহ্বান জানিয়ে সিইসি বলেন, ‘সক্রিয়ভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও প্রতিযোগিতা না থাকলে জনমতের সঠিক প্রতিফলন হয় না। পক্ষ-প্রতিপক্ষের সক্রিয় অংশগ্রহণ ও প্রতিদ্বন্দ্বিতা মাঠ পর্যায়ে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সম্ভাব্য অনিয়ম, কারচুপি, দুর্নীতি, অর্থ শক্তির বৈভব ও পেশি শক্তির প্রয়োগ ও প্রভাব বহুলাংশে নিয়ন্ত্রিত হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘এত কিছুর পরও ইভিএম নিয়ে অপপ্রচার চলছে। ইভিএম সম্পর্কে বিভ্রান্তি সংশয় থেকেই যাচ্ছে। আমরা সত্যি উদ্বিগ্ন হচ্ছি। কেন্দ্রে কেন্দ্রে অনিয়ম, সহিংসতা, ব্যালট পেপার ছিনতাই হলে প্রতিরোধ কতটা সম্ভব হবে। আমাদের প্রত্যাশা জাতীয় নেতারা ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে নিবিড়ভাবে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতা ও মতৈক্য হয়ে বিতর্কিত বিষয়গুলোর নিরসন করে আগামী সাধারণ নির্বাচনের জন্য অনুকূল পরিবেশ ও সমতল ভিত্তি সৃষ্টি করবেন।’

৩৯ রাজনৈতিক দলকে সংলাপের সময় দিয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ইসি। প্রথম দিনের প্রথম অংশে বসেছে জাতীয় গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) সঙ্গে। এতে দলের চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেন। এছাড়া অন্য নির্বাচন কমিশনার, ইসি সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও এতে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT