রবিবার ১৯ মে ২০২৪, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইডির অভিযান, দুজনকেই আটক পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী পার্থর বান্ধবীর বাড়ি থেকে ২১ কোটি রুপী জব্দ

প্রকাশিত : ০৫:২৯ পূর্বাহ্ণ, ২৪ জুলাই ২০২২ রবিবার ৯৫ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব এবং শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জীর ঘনিষ্ঠ বান্ধবী, মডেল অর্পিতা মুখার্জীর বাড়ি থেকে ২১ কোটি রুপী জব্দ করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। পার্থ রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর ডানহাত হিসেবে পরিচিত। এক সময় শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন। শুক্রবার ওই অভিযান চালানো হয়।

কেন্দ্রীয় সরকারের অধীন তদন্ত সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানায়, ‘উদ্ধার হওয়া এ অর্থের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির সম্পর্ক থাকতে পারে। শুক্রবার আটকের পর টানা ২৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় পার্থকে। এরপর শনিবার থেকে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। খবরে বলা হয়েছে, আটকের পর মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছেন দোর্দ-প্রতাপশালী পার্থ চ্যাটার্জী।

তবে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সহযোগিতা করছেন। গ্রেফতার হওয়ার পর তিনি বারবারই বলেছেন, সমস্ত শেষ! তার মানসম্মান (রেপুটেশন) সমস্ত নষ্ট হয়ে গেল। গ্রেফতার হওয়া পর্যন্ত পার্থর মধ্যে তেমন কোন অসুস্থতা দেখা যায়নি। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

শুক্রবার সকাল ৭টা নাগাদ পার্থর নাকতলার বাড়িতে গিয়েছিলেন ইডির কর্মকর্তারা। প্রাথমিক জেরার পর তারা চলে আসছিলেন। এরপর একটি দলিল তাদের নজরে আসে। ওই দলিলেই অর্পিতার বাড়িতে কাঁড়ি কাঁড়ি রুপী থাকার ইঙ্গিত মেলে। এরপর অর্পিতার বাড়িতে যান তারা। অভিযানের পর তাকেও আটক করে ইডি। পার্থ চ্যাটার্জী পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশনের সরকার পরিচালিত স্কুলগুলোয় অবৈধ নিয়োগ নিয়ে অভিযোগ উঠেছিল।

ইডির একটি সূত্র জানিয়েছে, তল্লাশি অভিযান থেকে শুক্রবার পার্থর বান্ধবী অর্পিতার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বিপুল অর্থ উদ্ধার করা হয়। সঙ্গে অন্যান্য মূল্যবান সামগ্রীও পাওয়া যায়। পার্থর আরেক সহযোগী মোনালিসা দাসের বাড়ি থেকেও উদ্ধার হয়েছে আবাসনের দলিলপত্র। প্রভাবশালী নেতা পার্থ চ্যাটার্জীর দুর্নীতির খবর প্রকাশ্যে আসার পর রাজ্য রাজনীতিতে তৃণমূল কংগ্রেস অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়তে পারে বলে খবরে আভাস দেয়া হয়েছে। তবে তৃণমূল এ অভিযানকে রাজনৈতিক বিরোধীদের হয়রানি করতে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের ‘চাল’ বলে অভিহিত করেছে।

রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, ‘দেশজুড়ে শহীদ দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য সমাবেশের একদিন পর ইডির এই অভিযান তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের হয়রানি ও ভয় দেখানোর চেষ্টা ছাড়া কিছুই নয়। অর্পিতার বাড়িতে ইডির অভিযান পরিচালনাকারী দল কাউন্টিং মেশিনের মাধ্যমে রুপী হিসাব করার জন্য ব্যাংক কর্মকর্তাদের সাহায্য নেন। অর্পিতার বাড়ি থেকে ২০ মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়েছে। এসব ফোন কী কাজে ব্যবহার করা হতো, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

পার্থ চ্যাটার্জীসহ অন্তত ১৪ নেতার বাড়িতে শুক্রবার অভিযান চালায় ইডি। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর থেকে প্রাথমিক, উচ্চপ্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বড় ধরনের দুর্নীতি হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি। তার দল তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ সামাজিক মাধ্যমে লেখেন, ইডি যে টাকা উদ্ধার করেছে, তার সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস দলের কোন সম্পর্ক নেই। কেন দলের নাম জড়িয়ে এই প্রচার চালানো হচ্ছে, দল তা নজরে রাখছে, যথাসময়ে এই বিষয়ে দল তার বক্তব্য জানাবে।

তৃণমূলের দায়িত্বশীল এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘এই বিবৃতি এবং মুখ্যমন্ত্রীর বিষয়টি নিয়ে কোন বিবৃতি না দেয়া বা পথে না নামা প্রমাণ করে এই মুহূর্তে সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর পাশে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী নেই।’ মডেলিংয়ের পাশাপাশি তামিল ও টালিগঞ্জের চলচ্চিত্রেও কাজ করেন অর্পিতা। ইডির অভিযানে তার বাড়িতে যে বিপুল পরিমাণ অর্থ পাওয়া গেছে তার উৎস সম্পর্কে তদন্তকারীদের প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি। তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে অর্পিতার সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই দলের।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি anusandhan24.com'কে জানাতে ই-মেইল করুন- anusondhan24@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

anusandhan24.com'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



এই বিভাগের জনপ্রিয়

ইরানি বংশোদ্ভূত দুই ব্রিটিশ নাগরিককে দীর্ঘদিন বন্দি রাখার পর মুক্তি দিয়েছে তেহরান। ৪৩ বছর আগের দেনা হিসেবে যুক্তরাজ্য ৪০ কোটি পাউন্ড ইরানের কাছে হস্তান্তরের পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।     বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, মুক্তির পর নাজানিন জাঘারি ও আনোশেহ আশোরি যুক্তরাজ্যে পৌঁছেছেন।  নাজানিন জাঘারি প্রায় ছয় বছর ধরে ইরানে বন্দিজীবন কাটিয়েছেন। সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।  নাজানিন জাঘারি ও আনোশেহ আশোরিকে বহনকারী প্লেন অক্সফোর্ডশায়ারের ব্রিজ নর্টন ব্রিটিশ সামরিক বিমানঘাঁটিতে অবতরণ করে। এর আগে তারা ওমানে সাময়িক সময়ের জন্য যাত্রা বিরতি নেন।  তারা একসঙ্গেই প্লেন থেকে নেমে আসেন এবং বিমানবন্দরে প্রবেশের পর পর উপস্থিত লোকজনের উদ্দেশে হাত নাড়েন। এদিকে মার্কিন নাগরিকত্ব থাকা মোরাদ তাহবেজ নামে আরও একজনকেও কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।  বুধবার তাদের মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ত্রাস এবং প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।   এ বিষয় ইরানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, এর আগে ইরানের কাছে ইসলামি বিপ্লবের আগে অর্থাৎ প্রায় ৪৩ বছর আগের দেনা হিসেবে ব্রিটিশ সরকার তেহরানকে ৪০ কোটি পাউন্ড (৫২০ মিলিয়ন ডলার) প্রদান করেছে।  ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, এটি নিশ্চিত করতে পেরে আমি খুব খুশি, নাজানিন জাঘারি এবং আনোশেহ আশোরিকে অন্যায়ভাবে বন্দি রাখার দিন শেষ হয়েছে। তারা মুক্তি পেয়ে যুক্তরাজ্যে ফিরেছে।

ইরানি বংশোদ্ভূত দুই ব্রিটিশ নাগরিককে দীর্ঘদিন বন্দি রাখার পর মুক্তি দিয়েছে তেহরান। ৪৩ বছর আগের দেনা হিসেবে যুক্তরাজ্য ৪০ কোটি পাউন্ড ইরানের কাছে হস্তান্তরের পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, মুক্তির পর নাজানিন জাঘারি ও আনোশেহ আশোরি যুক্তরাজ্যে পৌঁছেছেন। নাজানিন জাঘারি প্রায় ছয় বছর ধরে ইরানে বন্দিজীবন কাটিয়েছেন। সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়। নাজানিন জাঘারি ও আনোশেহ আশোরিকে বহনকারী প্লেন অক্সফোর্ডশায়ারের ব্রিজ নর্টন ব্রিটিশ সামরিক বিমানঘাঁটিতে অবতরণ করে। এর আগে তারা ওমানে সাময়িক সময়ের জন্য যাত্রা বিরতি নেন। তারা একসঙ্গেই প্লেন থেকে নেমে আসেন এবং বিমানবন্দরে প্রবেশের পর পর উপস্থিত লোকজনের উদ্দেশে হাত নাড়েন। এদিকে মার্কিন নাগরিকত্ব থাকা মোরাদ তাহবেজ নামে আরও একজনকেও কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। বুধবার তাদের মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ত্রাস এবং প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এ বিষয় ইরানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, এর আগে ইরানের কাছে ইসলামি বিপ্লবের আগে অর্থাৎ প্রায় ৪৩ বছর আগের দেনা হিসেবে ব্রিটিশ সরকার তেহরানকে ৪০ কোটি পাউন্ড (৫২০ মিলিয়ন ডলার) প্রদান করেছে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, এটি নিশ্চিত করতে পেরে আমি খুব খুশি, নাজানিন জাঘারি এবং আনোশেহ আশোরিকে অন্যায়ভাবে বন্দি রাখার দিন শেষ হয়েছে। তারা মুক্তি পেয়ে যুক্তরাজ্যে ফিরেছে।

© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। anusandhan24.com | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT